শ্রমিক বেতন বিতর্ক নিয়ে মুখ খুললেন সাকিব

0
741
bdtimeline24

(অনলাইন ডেস্ক) গত কয়েকদিন ধরে সাকিব এগ্রো ফার্মের শ্রমিকদের বেতন নিয়ে বিতর্কিত অবস্থানে ছিলেন সাকিব আল হাসান। কয়েকটি সংবাদ মাধ্যম দাবি করেছে যে, সাকিব তার ফার্মের শ্রমিকদের নাকি ঠিকমত বেতন দিচ্ছেন না। এই সংবাদটি গত কয়েকদিন ধরেই ছিলো আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে। এসকল বিষয়গুলো নিয়ে সাকিব তার ফেসবুক পেজে একটি স্ট্যাটাস দেন।

সাকিব বলেন কয়েকদিন ধরে এগ্রো ফার্মে ঘটে যাওয়া ঘটনা নিয়ে বিলম্বে বক্তব্য দেওয়ার জন্য আন্তরিকভাবে দুঃখিত। আপনারা জানেন আমার অন্যান্য কোম্পানীর মত এই কোম্পানীটিও অন্যান্য মালিক দ্বারা পরিচালিত হয়। বেশিরভাগ সময় দৈনন্দিন কাজের জন্য আমার পক্ষে সরাসরি এসব প্রতিষ্ঠান তদারকি করা সম্ভব হয় না। আপনারা এটাও জানেন বছরের শুরু থেকেই আমি দেশের বাহিরে অবস্থান করছি পরিবারের সাথে আমার পরিবারে নতুন সদস্যের আগমনের অপেক্ষায়। যার কারণে সাকিব এগ্রো ফার্মের বর্তমান অবস্থা নিয়ে আমার জানা ছিলো না। আমি মিডিয়ার মাধ্যমে খবরটি জানতে পারি। আমি তখনি কোম্পানীর বাকি মালিকদের সাহায্য ছাড়াই নিজের তহবিল থেকে তাদের বেতন পরিশোধ করে দেই। সাকিব আরও বলেন অন্যান্য মালিকরা আমাকে গত কয়েক মাস ধরে ফার্মের খবর জানাতে ব্যর্থ হয়েছেন। কিন্তু তারা আমাকে এটা অবহিত করেছিলেন যে, জানুয়ারীর শেষেই প্রায় সব কর্মচারীকে চাকরি থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। বাকি কয়েকজন শ্রমিক যারা কর্মরত ছিলেন তাদের ৩০ এপ্রিলের ভেতর বেতন পরিশোধের কথা বলা হয় এবং তারা মেনে নেয় তা।

advertisement

তিনি আরো বলেন, আমার বিশ্বাস এটা আমাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়,আমাদের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকার কথা ছিলো। শ্রমিকরা ৩০ এপ্রিল বেতন নিতে রাজি হওয়ার পরেও কেন তারা আন্দোলন শুরু করল আমি তা বুঝতে পারছি না। তাদের এরকম কাজে আমি সত্যিই বিস্মিত। হয়তো তারা কারো কুপ্ররোচনাতেই এমনটি করেছে।

অনেকের মত আমিও করোনা মোকাবেলায় তহবিল গঠন করে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছি। আমি বুঝলাম না কেন মানুষ এটা ভাবলো যে, আমি আমার কর্মচারীদের বেতন বঞ্চিত করবো যেখানে আমি গত ৩ বছর ধরে নিয়মিত বেতন প্রদান করে আসছি।

আমি জানিনা কেন মিডিয়া যাচাই না করেই আংশিক সত্য নিউজ সবার সামনে তুলে ধরলেন। তাদের উচিত ছিলো সম্পূর্ণ সত্যি তথ্য জেনে তারপর এধরনের শি্রোনামগুলো তুলে ধরা। আমার বিশ্বাস সঠিক তথ্য যাচাই করে সবার সামনে তুলে ধরা মিডিয়ার দায়িত্ব, তা নাহলে আমার মত অনেকেই ক্ষতিগ্রস্ত হবে। তারা আমাকে দোষারোপ না করে বাকি মালিকদের নাম সহ ব্যাপারটা সবার সামনে তুলে ধরতে পারতো। এধরনের মিথ্যা সংবাদ কেউ আশা করে না। আমি বিশ্বাস করি সাংবাদিক ভাই-বোনেরা সংবাদ প্রকাশের ক্ষেত্রে আরো যত্নশীল হবেন।

আমি মনে করি জাতি হিসেবে এই সংকট মোকাবেলায় আরও গুরুত্বপূর্ণ কাজ করতে হবে এবং সব ধরনের ভুল তথ্য আর গুজবের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হবে। এখন অন্যান্য যেসব গুরুত্বপূর্ণ বিষয় আছে সেগুলোর দিকে বেশি নজর দিতে হবে। এই পরিস্থিতিতে তিনি সকলকে নিরাপদে নিজ নিজ বাসায় অবস্থান করার অনুরোধ করেন।
সংগ্রহঃ জাহিদ হাসান খান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here